সব জল্পনার অবসান করে বুধবার বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়

আজবাংলা মঙ্গলবার রাতেই কলকাতা বিমানবন্দর থেকে দিল্লির উড়ান ধরেছেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র তথা রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। বুধবারই নয়াদিল্লিতে বিজেপির সর্বভারতীয় সদর দপ্তরে আনুষ্ঠানিক ভাবে গেরুয়া পতাকা হাতে তুলে নেবেন বলে জানা গিয়েছে । মঙ্গলবারই দূরত্ব বাড়িয়ে বিধানসভার স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন শোভনবাবু। স্পিকারের অনুরোধেও কাজ হল না। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে বিধানসভার মত্‍স এবং প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা দেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। বিধানসভার সেক্রেটারির কাছে ফ্যাক্স মারফত আসে শোভনবাবুর ইস্তফাপত্র। আর এই বিষয়ে উষ্মা প্রকাশ করেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, আগেই কলকাতার মেয়র এবং রাজ্যের মন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন শোভনবাবু। এবার বিধানসভার স্ট্যান্ডিং কমিটি থেকে ইস্তফা দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ান তিনি।আগামী বছর পুর নির্বাচনের মুখোমুখি হবে কলকাতা। লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল বলছে, কলকাতার ৫০টি ওয়ার্ডে পিছিয়ে রয়েছে তৃণমূল। নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হওয়ার পর পরই বিজেপি-র হাওয়া যে আগের চেয়ে বেড়েছে বই কমেনি, তা-ও তৃণমূল নেতৃত্বের বুঝতে অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। এই পরিস্থিতিতে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মতো হেভিওয়েট নাম গেরুয়া শিবিরে যোগদান করলে মহানগরের বুকে পরিস্থিতি যে তৃণমূলের জন্য আরও প্রতিকূল হয়ে ওঠার আশঙ্কা থাকে সে কথা বলাই বাহুল্য।