নির্বাচন কমিশনে কাছে কৃষকদের টাকা বিতরণের জন্য অনুমতি চাইল রাজ্যসরকার

রাজ্যসরকার
রাজ্যসরকার

আজবাংলা   নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণার বেশ কিছুটা আগেই প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, ঘোষণা-ই সার! সেই প্রকল্পের সুযোগ ভোটের আগে কৃষকদের পৌঁছে দেওয়া যাবে কিনা, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়।  নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই আদর্শ আচরণ বিধি লাগু হয়ে গিয়েছে। ফলে কোনও নতুন প্রকল্পের প্রচার বা সূচনা এখন বিধির আওতায়। আর সেখানেই দেখা দিয়েছে জটিলতা। এবার আলুর উত্পাদন অধিক হওয়ায় সহায়ক মূল্যে কৃষকদের কাছ থেকে আলু কেনার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কোনও কোনও জায়গায় সেই আলু কেনা শুরু হলেও, নির্বাচন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই কৃষকদের কাছ থেকে সেই আলু কেনাও স্থগিত হয়ে গিয়েছে। সেই জন্যেও কমিশন এর অনুমতি চেয়েছে রাজ্য। পাশাপাশি কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহের ব্যাপারে অনুমতি চেয়েও কমিশনের দ্বারস্থ রাজ্য। নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই আদর্শ আচরণ বিধি লাগু হয়ার পরে রাজ্য কেন চাইছে ভোটের মুখে কৃষকদের টাকা দিতে। প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলেরে