টিভির আমদানিতেও কড়া বিধিনিষেধ, মন্দা চীনা ব্যবসায়

টিভির আমদানিতেও কড়া বিধিনিষেধ, মন্দা চীনা ব্যবসায়

আজবাংলা,   লাদাখের গালওয়ানে বিবাদের পর থেকেই চিনের থেকে আমদানি কমেছে। বেশ কিছুদিন হয়ে গেছে সমস্ত রকমের চায়না অ্যাপ বাতিল করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নকে সফল করতে আত্মনির্ভর হতে হবে দেশকে। এর প্রভাব পড়তে চলেছে চীনা ব্যবসায়। পাশাপাশি, এই বিদেশি জিনিসের আমদানি কমলে ভারতীয় পণ্যের উৎপাদন ও চাহিদা, দুই বাড়বে। এইজন্য চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি হল নতুন এক বিধিনিষেধ। রঙিন টিভির আমদানির উপরও চাপল নতুন নিয়ম। ডিরেক্টর জেনারেল অফ ফরেন ট্রেডের প্রেসের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগে টেলিভিশন আমদানির জন্য কোনও লাইসেন্স নিতে হত না। এখন থেকে DGFT-এর কাছ থেকে এ বিষয় অনুমতি নিতে হবে। তবে কী জন্য অনুমতি দেওয়া হবে সে বিষয় নির্দেশিকায় কিছু স্পষ্ট করে বলা হয়নি এখন ও। ৩৬ ইঞ্চি থেকে ১০৫ ইঞ্চি এই সব মাপের স্ক্রিনের রঙিন টিভির ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। টবে এই নিয়মের আওতায় রয়েছেছে ৬৩ সেন্টিমিটারের নিচের এলসিডি টিভিও। এখন ভারতে সবচেয়ে বেশি রঙিন টিভি দেয় চিন। ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে ৭৮১ মিলিয়ন ডলারের ওপর টিভি আমদানি করেছে ভারত। চিন থেকে ২৯৩ মিলিয়ন ডলারের রঙিন টিভি আমদানি করা হয়েছে। হঠাৎ বিনা মেঘে বজ্রপাতের মত এই বিধি চাপানোর পিছনে গভীর তাৎপর্য আছে বলে মনে করছে উঁচু মহল।