ছাত্রীর সামনেই সাফাইকর্মীর হস্তমৈথুন, উত্তাল বিশ্ববিদ্যালয়।

student Safai Karmir marchanal Ural University
সাফাইকর্মী

আজবাংলা  চেন্নাইয়ের এসআরএম বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ছাত্রীর সামনেই সাফাইকর্মীর হস্তমৈথুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার রাতে উত্তাল হয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর।  অভিযোগ, মহিলা হস্টেলের লিফটের মধ্যেই এক ছাত্রীকে দেখে স্বমেহনে লিপ্ত হয় এক সাফাইকর্মী। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে গিয়ে ঘটনাটি জানান তিনি। এরপরই উত্তাল হয়ে ওঠে প্রতিষ্ঠান চত্বর। মহিলা হস্টেলে এ ধরনের ঘটনা কীভাবে ঘটতে পারে, সে প্রশ্নই তোলা হয়। প্রতিবাদে শামিল সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্র জানান, গতকাল দুপুর ৩টের ঘটনা। হস্টেলের ছ’তলায় নিজের ঘরে যাওয়ার জন্য লিফটে ওঠেন দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রী। সেই সময়ই লিফটে উপস্থিত ছিল এক সাফাইকর্মী। অভিযোগ, ছাত্রীকে দেখামাত্র সেখানেই স্বমেহন করতে থাকে সে। লিফট থামিয়ে সেখান থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করেন ছাত্রী। কিন্তু তাঁর পথ আটকে দেয় অভিযুক্ত। শেষে চারতলায় লিফট দাঁড়ালে চিত্‍কার করে সেখান থেকে বেরিয়ে আসেন ছাত্রী। সাহায্যের আরজি জানাতে থাকেন। যৌন হেনস্তার শিকার ওই ছাত্রীর অভিযোগ, লিফটের সিসিটিভি ফুটেজে গোটা ঘটনা ধরা পড়েছে। কিন্তু হস্টেলের ওয়ার্ডেন সেই ফুটেজ দিতে অনেক সময় নেয়। পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ শুনতেও প্রায় দু’ঘণ্টা দেরি করে সে। এমনকী এই ঘটনার জন্য ওই ছাত্রীকেই কাঠগড়ায় তোলে ওয়ার্ডেন। বলে, ওই ছাত্রী সভ্য পোশাকে ছিলেন না। তাই এই ঘটনা