মুসলিম স্বামী, তাই হিন্দু মহিলার শ্রাদ্ধ করতে নারাজ দিল্লির মন্দির ।

temple of Delhi, unwilling to mourn the Hindu woman.
ঈহিণী আম্বরীণ

আজবাংলা হিন্দু ধর্ম বিশ্বাসি নিবেদিতা ঘটক ভালবাসার টানে দীর্ঘ কুড়ি বছর আগে  দাম্পত্য জীবন শুরু করেন ইমতিয়াজুরের সাথে । দীর্ঘ অসুস্থতার পর দিল্লির একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিবেদিতা ঘটক কের সম্প্রতি মৃত্যু হয়। স্ত্রীর ইচ্ছেকে সম্মান জানিয়েই হিন্দু মতে দিল্লির নিগম বোধ ঘাটে দাহ করা হয় নিবাদিতার দেহ।রীতি মেনে ঠিক ১১ দিনের মাথায় শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের জন্য ইমতিয়াজুর বেছে নেন দক্ষিণ দিল্লির চিত্তরঞ্জন পার্ক কালী মন্দিরকে। সোমবার সন্ধ্যায় ইমতিয়াজুর সি আর পার্ক কালীমন্দিরে গিয়েছিলেন শ্রাদ্ধের জন্য জায়গা বুকিং করতে। মন্দির কর্তৃপক্ষ আগামী রবিবারের জন্য বুকিংও নেন।

 

তার জন্য নির্দিষ্ট ১ হাজার ৩০০ টাকা নিয়ে তাঁরা রশিদ দিয়েছিলেন।”কিন্তু সমস্যা শুরু হয় তার ঘন্টাখানেক পর থেকে। ইমতিয়াজ বলেন, “আমার মোবাইলে মন্দির কর্তৃপক্ষ হঠাৎই ফোন করেন। তাঁরা বার বার আমার নাম জিজ্ঞাসা করেন।  ইমতিয়াজ বলেন প্রথমে ওঁদের ধারণা ছিল, সম্পর্কটা শ্বাশুড়ি-জামাইয়ের। কিন্তু পরিষ্কার জানাই যে, আমার স্ত্রীর শ্রাদ্ধানুষ্ঠান হবে। আর সেই কাজ করবে তাঁদের একমাত্র মেয়ে ঈহিণী আম্বরীণ।  শেষ পর্যন্ত দিল্লির অন্য একটি সংস্থা তাঁদের সাহায্যের আশ্বাস দিলেও, ঘটনার আকস্মিকতার ঘোর কাটেনি