রাজ্যে আসছেন কেন্দ্রীয় নেতা রামমাধব ও হিমন্ত বিশ্বশর্মা

সুমন দেব , আগরতলার প্রতিনিধি  জোট কি থাকবে না থাকবেনা এবিষয়ে বিজেপি সদর দলের কোর কমিটির প্রায় সমস্ত সদস্যই দলের সভাপতি তথা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের সাথে বৈঠকে মিলিত হন। জানা গেছে, বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত এই বৈঠক চলে। যদিও এখনো পর্যন্ত এই বৈঠকে কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য দুদিনের সময় চেয়েছেন। এদিকে বৈঠকে বিগত ;কয়েকদিন ধরে রাজ্যের যে আশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি হয়েছে এবং যেভাবে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের উপর আক্রমণ কড়া হচ্ছে তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয় এই বৈঠকে বলে জানা গেছে। বৈঠকে কোর কমিটির সকল সদস্যই সম্মিলিতভাবে আইপিএফটির সাথে জোট ছিন্ন করার জন্য বিজেপি সভাপতি তথা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের উপর চাপ সৃষ্টি করেছিল। কিন্তু বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত ‘চলা এই বৈঠকে কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। জানা গেছে, এই জটিল সমস্যা সমাধানের লক্ষে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব দিল্লিতে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলেন। শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব আইপিএফটির তিন বিধায়ক বৃষকেতু দেববর্মা, ধনঞ্জয় ত্রিপুরা এবং প্রেম কুমার রিয়াংকে মন্ত্রীসভায় নেওয়ার প্রস্তাব রাখেন। জান গেছে, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সমস্ত বিষয়ে অবহিত হয়েছেন। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দলের হাইকমান্ড কেন্দ্রীয় নেতা রামমাধবকে রাজ্যে পাঠাচ্ছেন সাথে আসামের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মাও আসতে পারেন বলে জানা গেছে।