‘নগ্ন’স্কুলে করে ক্লাস করানোর অভিযোগে নড়েচড়ে বসেছে শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশন

st.teresa's school
st.teresa's school

পার্থ দাস আজবাংলা বীরভূম বোলপুরে বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের বাইরে বিক্ষোভ দেখান অভিভাবকরা। স্কুলের ইউনিফর্ম পড়ে না আসায় পড়ুয়াদের ‘প্যান্ট খুলিয়ে নগ্ন করে’ ক্লাস করানোর অভিযোগ উঠেছে একটি বেসরকারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। আরও অভিযোগ, নগ্ন অবস্থাতেই বাড়ি পাঠানো হয় পড়ুয়াদের। এই ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে বীরভূমের বোলপুরে। প্রিন্সিপ্যালকে সরানোর দাবিতে আজ বিক্ষোভে ফেটে পড়েন অভিভাবকরা। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে পড়ুয়াদের নির্দিষ্ট পোশাক পরে আসতে বলা হয়েছে একথা ঠিক।

পড়ুয়ারা সে নিয়ম মানেনি সেকথাও ঠিক। কিন্তু পোশাক খুলে নেওয়ার ঘটনা অস্বীকার করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। গোটা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তলব করেছেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, সংবাদমাধ্যমে তিনি যে খবর দেখেছেন তা গভীর চিন্তার বিষয়। কোন স্কুলের অধ্যক্ষ বা কর্তৃপক্ষ কোনও সিদ্ধান্ত নিলে তার প্রভাব ছাত্রছাত্রী এবং অভিভাবকদের মধ্যে পড়লে তা অবশ্যই খতিয়ে দেখতে হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি এও জানিয়েছেন যে শিক্ষা দফতরের আধিকারিকদের গোটা ব্যাপারটা খতিয়ে দেখে একটি পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে। এই ঘটনায় গতকালই শান্তিনিকেতন থানায় লিখিত অভিযোগ করেন পড়ুয়াদের অভিভাবকরা। বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা। বিষয়টি ‘মিটমাট’ করতে শেষে শান্তিনিকেতন থানায় গিয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন প্রিন্সিপ্য়াল।সাংবাদিক বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “যা হয়েছে তা খুব খারাপ। গোটা বিষয়ের খোঁজ নেব।” অন্যদিকে, অত্যন্ত ন্যক্কারজনক এই ঘটনা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশনও। গোটা ঘটনা জানতে চেয়ে বীরভূমের জেলাশাসককে চিঠি দিচ্ছে কমিশন।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!