হাসপাতালের ‘গাফিলতি’তে রাস্তাতেই মৃত্যু হল এক করোনা রুগীর

আজবাংলা      কলকাতা       ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকালে উত্তর কলকাতার শোভাবাজার এলাকায় | শোভাবাজার এলাকার ১৯ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি গত তিনদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন | পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, গা-হাত-পায়ে ব্যথা ছিল, ঠান্ডা লেগে জ্বরও এসেছিল কিন্তু সেটা কমে গিয়েছিল | কিন্তু হটাৎ করেই শনিবার সকাল থেকে শ্বাসকষ্ট শুরু হয় |তারপরেই বাড়ির সকলে মিলে তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান| সেখানে সব পরীক্ষা করার পরেও ভর্তি নেয়নি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ | বেলেঘাটা আইডি-তে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে কিন্তু সেখানেও ভর্তি না নিয়ে তাঁরা এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে রেফার করে | বাড়ির লোকজন তাঁকে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময়ই তাঁর মৃত্যু হয় |স্থানীয় বাসিন্দাদের কথায়, “সরকারি নির্দেশিকা রয়েছে কোনও রোগীকে ফেরানো যাবে না। তারপরেও কীভাবে ওই রোগীকে অন্য হাসপাতালে রেফার করা হল? কেন তাঁর অক্সিজেনের ব্যবস্থা করা হল না?” বাড়ির লোকজন তারপরে তাঁর মৃতদেহ বাড়িতে ফিরিয়ে নিয়ে এসে সৎকার করে | স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন বেক্তিটির করোনা উপসর্গ দেখা দিয়েছিল | কোন কিছু না মেনেই দেহ সৎকার করা হয় | তারফলে অন্যান মানুষেরাও বিপদে পড়তে পারে | তাঁরা দাবি জানিয়েছেন যারা যারা তাঁর সংস্পর্শে এসেছিল তাদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হক |রাজ্য সরকারের নির্দেশ পালন না করে বারবার সরকারি হাসপাতালগুলি এই ভাবে মানুষগুলিকে ফিরিয়ে দিচ্ছেন | যার ফলে মৃত্যু হচ্ছে অনেকের | জানা গিয়েছে বেলেঘাটা আইডি থেকে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময়ই এম্বুলেন্সে অক্সিজেনের অভাবে এই ভাবে প্রাণ গেল বেক্তিটির |