পাকিস্তানের মুখে ঝামা ঘষে ভারতের অবস্থানকে সমর্থন ইউরোপিয় ইউনিয়ন পার্লামেন্টের

আজবাংলা গত মাসে কাশ্মীরের সাংবিধানিক বিশেষাধিকার প্রত্যাহার করে মোদী সরকার। তার পর থেকে গোটা বিশ্বে ভারতকে কোনঠাসা করতে নামে পাকিস্তান। কিন্তু হিতে বিপরীত হয়। উলটে পাকিস্তানের পাশ থেকে সরে যায় ঘনিষ্ঠ বন্ধু চিনও। গোটা বিশ্বে একঘরে হয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, কেউ পাশে থাকুক বা না থাকুক, কাশ্মীরের পাশে আছে পাকিস্তান। এবার সেই কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের মুখে ঝামা ঘষে ভারতের অবস্থানকে সমর্থন করে ইউরোপিয় ইউনিয়ন জানাল পাকিস্তান একটা বিভ্রান্ত রাষ্ট্র।ভারতকে বিশ্বের মহানতম গণতন্ত্র বলে উল্লেখ করে ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতে বিগত কয়েক বছরে মোট কত জঙ্গি হানা হয়েছে তার দিকে নজর রেখে কাশ্মীর সিদ্ধান্তের মূল্যায়ন করতে হবে।এদিন ইউরোপিয় ইউনিয়ন পার্লামেন্টের এক খ্রিস্টান ডেমোক্রেট সদস্য জানিয়েছেন, 'পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের হুমকি দিচ্ছে। পাকিস্তান এমন একটা জায়গা যেখানে বসে জঙ্গিরা ইউরোপে প্রাণঘাতী হামলার পরিকল্পনা করে। সেদেশে মানবাধিকারের অবস্থাও তথৈবচ।'তিনি বলেন, 'বিশ্বের মহানতম গণতন্ত্র ভারত। সেখানে যে জঙ্গি কার্যকলাপ হয়েছে তার দিকে আমাদের নজর দেওয়া উচিত। জঙ্গিরা চাঁদ থেকে এসে পড়েনি। তারা প্রতিবেশী দেশ থেকে আসছে। তাই আমাদের ভারতের পাশে দাঁড়ানো উচিত।'