কালীঘাটের আনন্দময়ী মা অত্যন্ত দয়াময়ী, তিনি সর্বদা রক্ষা করেন তার সন্তানদের

কালীঘাটের আনন্দময়ী মা অত্যন্ত দয়াময়ী, তিনি সর্বদা রক্ষা করেন তার সন্তানদের
আজবাংলা     আমরা সকলেই জানি কালীঘাটের মা আনন্দময়ী সকলকে সবসময় রক্ষা করে চলেছেন | মা শুধু অমাবস্যায় নয় প্রতিটি মুহূর্তেই সকলের জীবনে নতুন সুখের সন্ধান দেন | মা কালীর আশীর্বাদে জীবন অত্যন্ত সুন্দর হয়ে ওঠে সকলের | আনন্দময়ী মা কখনই কাউকে নিরাশ করেন না | জীবনে যখন অনেক সমস্যা জড়িয়ে ধরে তারসঙ্গে হওয়া কাজ আটকে যায়, একবার নয় বহুবারেও অতি সহজ কাজ সম্পন্ন হয়না | তখনই জীবনে প্রয়োজন হয় মহাশক্তির আরাধনার | মহাশক্তির আরাধনায় জীবনের সমস্ত বাধা-বিপত্তি আস্তে আস্তে দূর হয়ে যায় সকলের থেকে | মায়ের আরাধনায় শান্তি লাভ করেন সমস্ত ভক্তবৃন্দ | অনেক সময় দেখা যায় মধ্যবিত্ত পরিবারের আর্থিক সমস্যা | এই আর্থিক সমস্যা থেকেই শুরু হয় অনেকের মধ্যে অশান্তি | মায়ের সান্নিধ্যেই সততার সন্ধান আসে এবং মিটে যায় সকলের সমস্যা | মায়ের প্রতি ভক্তিতেই সন্তানের জীবনে আসে চরম মুক্তি | যেতে আস্তে যখনি সময় পাবেন মায়ের নাম করবেন | মায়ের নাম করা উচিৎ মনে, বনে ও কনে | মা সর্বদাই আপনাকে রক্ষা করবেন | মা সবসময় সন্তানকে মুক্তি দেন সমস্ত বিপর্যয় থেকে | কালীঘাটের মা অত্যন্ত দয়াময়ী তিনি কৃপাসিন্ধু | নানান ধরনের সমস্যায় যখন জীবন জর্জরিত হয়ে যায় | তখন কোন কিছু না ভেবে না চিন্তা করে একমনে মাকে ডাকুন, দেখবেন ঠিক মা আপনার ডাকে সারা দেবেন | মা সারদা সব সময় বলতেন তিনি সতেরও মা অসতেরও মা, অর্থাৎ মায়ের কাছে তার সন্তানই শেষ কথা | মায়ের কাছে তার সকল ভক্তরাই তার নিজের সন্তান | নিজের সন্তানকে যেমন একজন মা ভালবেসে আগলে রাখেন | তেমনি মা আনন্দময়ী এই পৃথিবীতে তার সমস্ত সন্তানকে আগলে রাখেন | মা সব সময়েই সন্তানকে রক্ষা করেন নিজের সমস্ত শক্তি দিয়েই | ফলে সন্তানের জীবনে নেমে আসে সুখের স্বর্গ | অমাবস্যায় কালীঘাটের মায়ের পুজো করলে বিশেষ ফল পাওয়া যায় বলেই অনেকেই বিশ্বাস করেন | এও বিশ্বাস রয়েছে যে মায়ের নামে অনেক সমস্যা এক সঙ্গে কেটে যায় | কালীঘাটের আনন্দময়ী মা অত্যন্ত করুণাময়ী | তাঁকে মন ভরে পুজো করলেই মা সন্তুষ্ট হন | মায়ের আশীর্বাদ সমসময়ই তার সন্তানের ওপর আছে |