করোনা মোকাবিলায় বিশ্বব্যাপী প্রশংসা কুড়াচ্ছে ভারতীয় বংশোদ্ভূত আইরিশ প্রধানমন্ত্রী

আজবাংলা    করোনাভাইরাস সারাবিশ্বে ত্রাসের কারণ হয়ে উঠেছে। আক্রান্তদের চিকিৎসা পরিষেবার দেওয়ার জন্য আরও বেশি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীর দরকার পড়ছে। এই পরিস্থিতিতে রাজনীতি থেকে নিজের পুরনো পেশায় ফিরে গেলেন আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী লিও বরোদকর। ৪১ বছরের বরোদকর ভারতীয় বংশোদ্ভূত। ডাবলিনে জন্ম লিও-র। বাবা ছিলেন ভারতীয় চিকিৎসক ও তাঁর মা ছিলেন আইরিশ নার্স। মহারাষ্ট্রের সিন্ধুদুর্গ জেলার মালভান তহশিলের ভারাদ গ্রামের ছেলে লিও ভারাদকর। লিও ভারাদকরের বাবা অশোক ভারাদকর ছিলেন পেশায় ডাক্তার। মুম্বই শহর থেকে প্রায় ৫০০ কিমি দূরে অবস্থিত সিন্ধুদুর্গ জেলার মালভান তহশিলের ভারাদ গ্রাম থেকে ১৯৬০-এর দশকে তিনি ইউকে পাড়ি দেন। পেশায় চিকিৎসক লিও ভারাদকার সক্রিয় রাজনীতি শুরু করেন ২০১৩ সালে। করোনাভাইরাস যখন মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ল, তিনি বসে থাকতে পারলেন না। চিকিৎসক হিসেবে সামনের সারিতে থেকে করোনা মোকাবিলা করার জন্য তিনি আবার নিবন্ধন করেন। প্রধানমন্ত্রী লিও দেশটির হেলথ সার্ভিস এক্সিকিউটিভের হয়ে সপ্তাহে একদিন কাজ করছেন। তিনিই প্রথম ইউরোপীয় সরকারপ্রধান যিনি করোনা দুর্যোগে সরাসরি চিকিৎসা নিয়োজিত। আইরিশ প্রধানমন্ত্রীর এমন ভূমিকা বিশ্বব্যাপী প্রশংসা কুড়িয়েছে। রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার জন্য চিকিৎসা নিবন্ধন প্রত্যাহার করার আগে তিনি ডাবলিনের সেন্ট জেমস হসপিটালে জুনিয়র চিকিৎসক হিসেবে প্রায় সাত বছর কাজ করেছেন।  কোভিড-১৯ মোকাবিলার জন্য আইরিশ হেলথ সার্ভিস একজিকিউটিভ ফর এক্স হেলথ ওয়ার্কারস আবেদন করেছিলেন চাকরি ছেড়ে দেওয়া স্বাস্থ্যকর্মীদের পুনরায় কাজে যোগদানের জন্য। সেই আবেদনে সাড়া দিয়েই এই কাজ করেছেন তিনি।