সহবাস করে বিয়ে করতে অস্বীকার করায় প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে থানা গিয়ে সটান হাজির প্রেমিকা

আজবাংলা বসিরহাট প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে থানা গিয়ে সটান হাজির প্রেমিকা! দৃশ্য দেখে হতবাক পুলিসও। চাঞ্চল্যকর ঘটনার সাক্ষী থাকল বসিরহাট মহকুমার হাড়োয়া ব্লকের খাড়ুবালা গ্রাম। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই যুবক কলকাতার নার্সিংহোমে চিকিত্সাধীন। যদিও প্রতিবেশীদের কথায় উঠে আসছে, আরও একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য। অভিযোগ, তৃতীয় এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কের জন্য পুরনো প্রেমিককে এই ‘শাস্তি’দিয়েছেন যুবতী। খাড়ুবালা গ্রামে পাশাপাশি বাড়ি মৌসুমী বিশ্বাস ও সুরজিতের। দীর্ঘদিন ধরেই তাঁদের সম্পর্ক। দুই পরিবারই সেকথা জানত। তবে মৌসুমীর অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সুরজিত একাধিকবার তাঁর সঙ্গে সহবাস করেছেন। কিন্তু বিয়ের কথা উঠলেই পিছপা হয়ে যেতেন তিনি। তার জেরেই তিনি একাজ করেছেন বলে পুলিসকে জানান।গ্রামবাসীদের অভিযোগ, ত্রিকোণ প্রেমের জন্যই এই ঘটনা। সম্প্রতি মৌসুমী অন্য এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। তার জেরেই এই ঘটনা। রাতে সুরজিতকে বাড়িতে ডেকে তাঁর পুরুষাঙ্গ কেটে দেন মৌসুমী। পরে ভোররাতে তা নিয়েই থানায় হাজির হন। পুলিস ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। মৌসুমীকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিস।