স্বাস্থ্যকর্মীদের সম্মান জানাতে ওয়াশিং মেশিন প্রদান করলো মুক্তকেশী পূজা কমিটি।

দেবু সিংহ  আজবাংলা  মালদা    করোনাভাইরাস যুদ্ধে সৈনিকের ভূমিকা পালন করলেও চিকিৎসক ও নার্স স্বাস্থ্যকর্মীদের সমাজের বিভিন্ন স্থানে নানা লাঞ্ছনার শিকার হতে হচ্ছে। এরই প্রতিবাদ জানিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে সম্মান জানাতে এগিয়ে এলো বাঙ্গীটোলা গ্রামের মা মুক্তকেশী পূজা কমিটি। কেবলমাত্র স্বাস্থ্যকর্মীদের কথা ভেবেই এই গ্রাম থেকে দুটি ওয়াশিং মেশিন কিনে স্বাস্থ্য কর্মীদের উদ্দেশ্যেই দেওয়া হল । সোমবার গ্রামবাসীরা জেলা শাসকের হাতে এই দুটি ওয়াশিং মেশিন তুলে দেন। জেলাশাসকের আছে ওয়াশিং মেশিন কি তুলে দিয়ে মুক্তাকেশি পূজা কমিটির সভাপতি অচিন্ত্য মিশ্র " জানান আমরা জানি এই মুহূর্তে পৃথিবী ব্যাপী যুদ্ধ শুরু হয়েছে তার মূল সৈনিক হচ্ছে চিকিৎসক-নার্স সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা । তাই আমরা তাদের যৎসামান্য সাহায্য করে নিজেদের এই যুদ্ধে শামিল হওয়ার প্রচেষ্টা করেছি মাত্র।" এছাড়াও বাংলা গ্রামের আরেক যুবক নীলাংশু মিশ্র একইভাবে ছেলের জন্মদিনের টাকা বাঁচিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের সাহায্যার্থে আরেকটু ওয়াশিং মেশিন দান করলেন জেলা শাসকের কাছে।গত 25 শে মার্চ তার পুত্র সন্তানের এক বছর পূর্ণ হয়। ইচ্ছা ছিল ধুমধাম করে একটি জন্মদিন করবে। কিন্তু লকডাউন এর জন্য জন্মদিন করে ওঠা সম্ভব হয়নি। স্বাস্থ্যকর্মীদের সম্মান জানাতে নিজের মেয়ের জন্মদিনের টাকা বাঁচিয়ে আরেকটি ওয়াশিং মেশিন কিনে স্বাস্থ্য কর্মীদের উদ্দেশ্যে প্রদান করেছেন। সোমবার নীলাংশু বাবু জেলা শাসকের হাতে তার এই ক্ষুদ্র দান করে নীলাংশু মিশ্র জানানবাবুর " করোনা নিয়ে এই মুহূর্তে গোটা পৃথিবীতে একটা বিরাট যুদ্ধ চলছে।কিন্তু আমাদের এই রাজ্য তথা মালদা জেলায় দেখা যাচ্ছে চিকিৎসক-নার্সদের অসম্মানিত ও লাঞ্ছিত হতে হচ্ছে। এই ঘটনা আমার বুকে সাংঘাতিকভাবে দুঃখ দেয়। আর তাই তখনই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি ছেলের জন্মদিনের জমানো টাকা থেকে স্বাস্থ্য কর্মীদের জন্য যদি কিছু করা যায়।