প্রকাশ্যে বোরখা বা কাপড় দিয়ে মুখ ঢাকা নিষিদ্ধ করল নেদারল্যান্ডস।

আজবাংলা নেদারল্যান্ডের জনসংখ্যা প্রায় ১.৭ কোটি। এর মধ্যে প্রায় ২০০-৪০০ মহিলা বোরখা পরেন। ডাচ অভ্যন্তরীণ মন্ত্রকের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, শিক্ষাক্ষেত্র, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও বিল্ডিং, হাসপাতাল  ও রাস্তাঘাটে মুখ ঢাকা সমস্ত পোশাক নিষিদ্ধ করা হল। প্রকাশ্যে যাতে মুখ দেখে চেনা যায়, তার জন্যই এই সিদ্ধান্ত। ফলে নিকাব দিয়ে মুখ ঢাকতে পারবেন না মুসলিম মহিলারা। শুধু নিকাবই নয়। নিষিদ্ধ করা হল মুখ ঢাকা হেলমেট এবং মাস্কও। এই আইনের অমান্য করলে প্রায় ১৫০ ইউরো(ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১১,৫৭২ টাকা) পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। নতুন নিয়মে দেশে প্রকাশ্যে কোনও ব্যক্তি ওড়না বা কালো কাপড় দিয়ে মুখ ঢাকলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রায় দশ বছর ধরে রাজনৈতিক পর্যালোচনার পরে ২০১৮ সালের জুনে নেদারল্যান্ডে বোরখা ও নিকাব দিয়ে মুখ ঢাকা নিষিদ্ধ ঘোষিত হয়। এবার কার্যকর করা হল এই আইন। ফ্রান্সে ২০১০ সালে বোরখা পরা নিষিদ্ধ করা হয়। অন্যদিকে বেলজিয়াম, ডেনমার্ক এবং অস্ট্রিয়ার মতো ইউরোপীয় দেশগুলিতেও বোরখায় নিষেধাজ্ঞা জারি আছে।তবে, মুখ ঢাকা নিষিদ্ধ হলেও পোশাক হিসাবে বোরখা পরায় থাকছে না কোনও নিষেধাজ্ঞা।