ত্রিপুরা রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন সদ্য বিধবা এক মহিলা।

The newly widowed woman was asked about the health system of Tripura state.
ত্রিপুরা রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন সদ্য বিধবা এক মহিলা।

ত্রিপুরা রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন সদ্য বিধবা এক মহিলা। অভিযোগ গেছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর কাছেও। রাজ্যের দক্ষিণ জেলার বিলোনিয়া এলাকার বাসিন্দা অঞ্জলি দে (৪৭)-র অভিযোগ তার স্বামীর ব্রেনস্ট্রোক হয় গত মাসে। বিলোনিয়া হাসপাতাল থেকে রাজ্যের প্রধান রেফারেল হাসপাতাল আগরতলা সরকারি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পাঁচদিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে থাকলেও আইসিইউ বেড পাননি। তাই বাধ্য হয়ে তিনি তখন স্বামী তরুণ দে (৫৫)-কে আগরতলার বেসরকারি আইএলএস হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে দীর্ঘদিন চিকিৎসা করলেও তাঁর স্বামীকে বাঁচাতে পারেননি। এর পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দেড় লক্ষ টাকা নিয়েছে। মৃতদেহ আটকে রেখে আরও সাড়ে চার লক্ষ টাকা দাবি করা হয়েছে। পরে তিনি স্থানীয় নিউ ক্যাপিটাল কমপ্লেক্স থানায় এ ব্যাপারে অভিযোগ দায়ের করেন আইএলএস-এর বিরুদ্ধে। পরে অবশ্য চাপে পড়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মৃতদেহ ছেড়েছে। জানা গেছে তিনি এখন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব, স্বাস্থ্য দফতরের মন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মণের কাছে অভিযোগ করেছেন।