মাঝরাতে দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ হারালেন তৃণমূল কাউন্সিলর মহম্মদ খালিদ খান

আজবাংলা আসানসোল মাঝরাতে দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ হারালেন আসানসোল পুরনিগমের ৬৬ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর মহম্মদ খালিদ খান। শনিবার রাত ১১টা থেকে সাড়ে ১১টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে কুলটি থানার বরাকরের মানবেড়িয়া এলাকায়। সেসময় রাতের খাওয়াদাওয়া সেরে নিজের বাড়ির সামনেই পায়চারি করছিলেন শাসকদলের ওই কাউন্সিলর। হঠাত্‍ই বাইকে করে জনা-তিনেক দুষ্কৃতী এসে খুব কাছ থেকে গুলি করে খালিদ খানকে। প্রথমে কাউন্সিলরের পায়ে গুলি করা হয়। এবং পরে মৃত্যু নিশ্চিত করতে গুলি করা হয় গলায়। সঙ্গে সঙ্গে এলাকা থেকে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। এদিকে, ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন মহম্মদ খালিদ। তড়িঘড়ি আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিত্‍সকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এদিকে দলীয় কাউন্সিলেরর মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান আসানসোল পুরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি।  পরিবারের অভিযোগ, পুরনো শত্রুতার জেরেই এই ঘটনা ঘটেছে। তাছাড়া এই কাউন্সিলরের উপর হামলার ঘটনা প্রথম নয়। বছর তিনেক আগেও একই রকমরে হামলা চালিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। সেবারে প্রাণে বেঁচে যান খালিদ খান। কিন্তু, এবারে আর শেষরক্ষা হল না। কাউন্সিলরের মৃত্যুতে গোটা এলাকায় চাপা উত্তেজনার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। শোকস্তবদ্ধ মহম্মদ খালিদের পরিবার। তাঁরা জানাচ্ছেন, পুরনো শত্রুতার জেরেই হামলা চালানো হয়েছে খালিদের উপর। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।