উত্তরপ্রদেশে বাস দূর্ঘটনায় মৃত্যু হল মালদার দুই পরিযায়ী শ্রমিকের

accident

আজবাংলা    মালদা  : বাস দূর্ঘটনায় মৃত্যু হল চালক সহ দুই পরিযায়ী শ্রমিকের। আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। মৃত দুই পরিযায়ী শ্রমিকের নাম মহবুল আলি(২৮) ও জাহির আলি(৩০)। মৃত বাস চালকের নাম জানা যায়নি। মৃত মহবুল আলির বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুর-২ নং ব্লকের দৌলতপুর জিপির বেজপুরা গ্রামে এবং মৃত জাহির আলির বাড়ি চাঁচল ব্লকের মতিহার পুর জিপির ডোমাপীর এলাকায়।

ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বিকেল চারটা নাগাদ উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ এলাকার এপি জাতীয় সড়কে। দূর্ঘটনা স্থলে বাস চালক মারা যায় বলে খবর। স্থানীয় লোকজন ও অন্যান্য পরিযায়ী শ্রমিকরা রক্তাক্ত অবস্থায় দুই পরিযায়ী শ্রমিককে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তারবাবুরা মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন বলে জানান। তাদের অকাল মৃত্যুতে চাঁচল মহকুমা‌ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। দূর্ঘটনাটি কিভাবে ঘটেছে তার তদন্ত শুরু করেছে উত্তরপ্রদেশের পুলিশ।পরিযায়ী শ্রমিক মহম্মদ সাকিল ও ইরফান আলিরা জানান এদিন চাঁচল মহকুমার প্রায় ৩১ জন পরিযায়ী শ্রমিক একটি বাসে করে দিল্লি থেকে উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ হয়ে মালদার চাঁচল মহকুমায় আসার পথে ফিরোজাবাদ এলাকায় এপি জাতীয় সড়কে বাসের টায়ার পাংচার হয়ে যায় বলে জানান।

চালক সহ বেশ কয়েকজন পরিযায়ী শ্রমিক বাস থেকে নেমে যায়।চালক পাংচার সারার সময় পেছন দিক দিয়ে অপর একটি বাস সজোরে ধাক্কা মারলে বাস চাপা পড়ে চালক ঘটনা স্থলে মারা যায় বলে জানান ।তড়িঘড়ি করে স্থানীয় লোকজন ও পরিযায়ী শ্রমিকরা রক্তাক্ত দুই পরিযায়ী শ্রমিককে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তারবাবুরা মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন।মৃত দেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান। উত্তরপ্রদেশের পুলিশ বিহারের বাসে করে ২৯ জন পরিযায়ী শ্রমিককে বিহারে পাঠিয়ে দেন।তারা আবার অন্য বাস ধরে শনিবার মালদার চাঁচল মহকুমায় পৌঁছাবে বলে জানান।মৃত দেহ ফেরার অপেক্ষায় রয়েছে দুই পরিযায়ী শ্রমিকের পরিবার।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!