বাবাকে ভোট না দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে ভিডিও বার্তা ছেলের

বাবা ও ছেল
বাবা ও ছেল

আজবাংলা চট্টগ্রাম  আমার বাবা মনিরুল ইসলাম আসন্ন সংসদ নির্বাচনে বিএনপি–জামায়াত জোটের মনোনয়ন পেয়েছেন। আমি তাঁর একমাত্র ছেলে হিসেবে বলছি, আমার বাবাকে ভোট দেবেন না। এই ভাবেই বাবাকে ভোট না দেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও বার্তা ছেড়েছেন ছেলে নিয়াজ মোরশেদ ওরফে এলিট। চট্টগ্রাম–১ (মিরসরাই) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়ে পাননি। তবে তাঁর বাবা মনিরুল ইসলাম ওরফে ইউসুফ একই আসনে বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে পেয়েছেন। ভিডিও বার্তায় নিয়াজ মোরশেদ বলেন, ‘আমার বাবা মনিরুল ইসলাম আসন্ন সংসদ নির্বাচনে বিএনপি–জামায়াত জোটের মনোনয়ন পেয়েছেন। আমি তাঁর একমাত্র ছেলে হিসেবে বলছি, আমার বাবাকে ভোট দেবেন না।’ নিয়াজ বলেন, তাঁর পুরো পরিবার বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত। কিন্তু বিএনপির মতো একটা দলে তাঁর বাবার মতো একজন মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধিত্ব করছেন। এ জন্য তাঁর লজ্জা হচ্ছে। তিনি মিরসরাইতে নৌকার মনোনীত প্রার্থীকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান। নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন আদর্শিক জায়গা নিয়ে কোন আপোষ নেই। আমার পিতার জায়গায় যদি অন্যকোনো ব্যক্তি মনোনয়ন পেত তাহলেও আমার বক্তব্য একই থাকত।’ আমাদের পুরো পরিবার এবং আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে এ জীবনটা পার করেছি। বিএনপির মতো একটি সর্বহারা দল, বিএনপি-জামায়াত জোটের মতো জঙ্গি এবং মানুষ পোড়ানোর যে একটা জোট, সে জোটে আমার বাবার মতো একজন মুক্তিযোদ্ধা রিপ্রেজেন্ট করছে এটা আমার নিজের কাছে খুব একটা লজ্জা অনুভূত হচ্ছে।’ ‘আমি একটি জিনিস বলতে চাই, শুধু লন্ডন কানেকশন থাকলে, লন্ডনের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক থাকলে যে নমিনেশন পাওয়া যায় এটি একটি উদাহরণ। চট্টগ্রাম-১ এর মিরসরাইয়ের জনগণকে আহ্বান জানাচ্ছি, আপনারা বিএনপি-জামায়াত, ধানের শীষ এবং আমার বাবাকে বর্জন করুন এবং মিরসরাইতে নৌকার মনোনীত প্রার্থীকে জয়যুক্ত করুন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ পুনরুজ্জীবিত করতে আমরা সবাই একসাথে কাজ করি। আমরা চাই এ দল, এ জোট যেন বাংলাদেশের কোনো জায়গায় রিপ্রেজেন্ট করতে না পারে।’  ছেলেকে নিয়ে মনিরুল ইসলাম বেলেন আমার ছেলে আওয়ামী লীগ করে। আওয়ামী লীগের কাজই হলো বিএনপির বিরোধিতা করা। বিএনপি কি এত ছোট দল যে, কেউ বিরোধিতা করলেই তার কথায় ভোট কমবে?  এই ভোটে চট্টগ্রাম-১ এর মিরসরাইয়ের জনগণ বিএনপি কেই জেতাবে ।