যুবককে খুন করার অপরাধে অপরাধীর বাড়ি ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দিলো গ্রাম বাসীরা।

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদা গ্রামের এক যুবকের মৃত্যুর খবর পেয়ে অপরাধীর বাড়ি ভেঙে পুড়িয়ে দিল গ্রামবাস। ঘটনাটি ঘটেছে কালিয়াচক ২নম্বর ব্লকের মেহেরপুর এলাকায় । গত ১৮ আগস্ট এই গ্রামের বাবলু শেখের সঙ্গে প্রতিবেশী ফারুক শেখের বাড়ি তৈরি করাকে কেন্দ্র করে ঝগড়া লাগে। এমন সময় ফরজুল সেখ তার দলবল নিয়ে বাবলু চোখের উপর আক্রমণ করলে বাবলু শেখ গত সাত দিন ধরে কলকাতার পিজি হসপিটাল চিকিৎসা ছিলেন। গত শুক্রবার বাবলু শেখ মারা গেলে আজ সকালে তাকে গ্রামে নিয়ে আসা হয়। তার মৃতদেহ গ্রামে পৌঁছালে গ্রামবাসীরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে ।এবং ফরজুলের বাড়ি ভাঙচুর করে ও তার বাড়ি পুড়িয়ে দেয়া হয়। এই ঘটনায় গোটা মাথাবাড়ি এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ।পুলিশ বাবলু শেখের মৃত্যু ঘটনা একটি খুনের মামলা রুজু করেছে এবং অপরাধীকে গ্রেপ্তার করছে। তবু জনগণ এইভাবে পুলিশের উপর ভরসা করতে না পেরে নিজেই নিজের হাতে তুলে নিয়ে এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এই মৃত্যু ও অপরাধীর বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় গোটা মোথাবাড়ি এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ।