বিরাটের বিরুদ্ধে আদালতে হাজির হলেন এক আইনজীবী, উঠল গ্রেফতারের দাবি

বিরাটের বিরুদ্ধে আদালতে হাজির হলেন এক আইনজীবী, উঠল গ্রেফতারের দাবি
আজবাংলা,    করোনার দরুন তিনি দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে। হচ্ছে না অনুশীলন, তাই বাড়িতেই বই পরে, শরীরচর্চা করে সমায় কাটছে। এরই মধ্যে তার বিরুদ্ধে মাদ্রাজ আদালতে হাজির হলেন এক আইনজীবী। উঠেছে গ্রপ্তারের দাবিও। তিনি হলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের আধিনায়াক স্বয়ং বিরাট কোহেলি। লকডাউনের মধ্যে ঘরে থেকে কি এমন অপরাধ করলেন তিনি? যার জন্য উঠতে পারে গ্রপ্তারের দাবি। সম্প্রতি এক জুয়া খেলার বিজ্ঞাপনে দেখা গিয়েছে বিরাটকে। ঠিক এই জন্যই প্রস্ন তুলেছেন এক চেন্নাইইয়ের আইনজীবী। আইনজীবীর বক্তব্য এই সমস্ত বিজ্ঞাপন দেখে জুয়ার প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে নতুন প্রজন্ম। আর সেখানে যখন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিজ্ঞাপন করছে, সেখনে জুয়ার প্রতি আকর্ষণ দ্বিগুণ হবে এই প্রজন্মের ছেলে মেয়েদের কাছে। কারন এমন অনেকে আছে যারা মনে করেন, তারকারা যখন প্রচার করছেন তারমানে, বিষয়টি খারাপ হতে পারে না। এসব অনলাইন গেমের জন্য বাড়ির বাইরেও বেরনোর দরকার নেই, এমনিতেই করোনার জন্য সবাই বন্দি। ফলে এইসময় এই খেলা সমাজে বাজে প্রভাব ফেলতে পারে। সেই কারনে, আইনজীবীর আবেদন আদালতে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব জুয়া খেলার সমস্ত অ্যাপ যেন নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়।
আইনজীবী এখানেই চুপ থাকেননি। এরই সঙ্গে আদালতকে অনুরোধ জানিয়েছেন, জুয়া খেলার প্রচার করার অভিযোগে কোহলিকে গ্রেপ্তার করা উচিত। এই খেলাটি যে কতখানি ক্ষতিকর, তার উদাহরণও তুলে ধরেন। তিনি জানান, অনলাইন জুয়া খেলার জন্য এক তরুণ প্রচুর টাকা ধার নিয়েছিল। কিন্তু শেষমেশ তা শোধ করতে না পারায় আত্মঘাতী হয়। এই মামলার শুনানি আগামী মঙ্গলবার।