সুপ্রিম কোটের নির্দেশে য়ৌন হেনস্থা রুখতে “বিশাখা” কমিটি গঠন

sexual harassment
য়ৌন হেনস্থা

তন্ময় দাস,আজ বাংলা, উত্তর দিনাজপুর : বেশিরভাগ দেখা য়ায় নানা কারনে মহিলারা রা ছাত্রীরা অথবা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মহিলা কর্মচারী কিংবা কলেজ, স্কুল ছাত্রীরা যৌন হেনস্থা স্বিকার হয়ে থাকে। মহিলা দের হেনস্থা রুখতে অবশেষে কার্যত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ কে পালন করা হচ্ছে তাই এই নির্দেশে এক ধাপ এগিয়ে উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর । উত্তর দিনাজপুর জেলার শিক্ষা দপ্তর তৎপর হয়ে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে উদ্যোগ নিল নতুন কমিটি গঠনে। রাজ্যে গরমের ছুটি চলাকালীনই সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গঠিত হল “বিশাখা” কমিটি। “বিশাখা” কমিটি গঠন নিয়ে সক্রিয় হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে শুরু করে প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা স্তর প্রতিষ্ঠান পর্যন্ত। মহিলা দের হেনস্থা রুখতে শিক্ষা দপ্তরের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে জেলার সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষিকা এবং ছাত্রীরা এবং অভিভাবকরা।

এই ধরনের আরো খবর জানতে আমাদের ফেসবুক পাতায় লাইক করুন

উল্লেখ উত্তর দিনাজপুর জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের তরফে সব সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চিঠি পাঠিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে সুত্রের খবর , তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলিকে দ্রুত তার সাথে “বিশাখা “কমিটি গঠন করর নির্দেশ জারি করা হয়েছে । রাজ্য সরকারের তরফে গরমের ছুটি চলাকালীন সমস্ত বিদ্যালয় গুলিকে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে সেই বিজ্ঞপ্তি পেয়েই কমিটির সদস্যদের নামের তালিকা জমা করে জেলার বিদ্যালয় পরিদর্শকের দপ্তরে। এই দিন জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক( মাধ্যমিক)রবীন্দ্র নাথ মন্ডল জানান , এটি একটি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে কোনও শিক্ষাকেন্দ্রে এই ধরণের ঘটনা ঘটলে ঘটে থাকলে ওই”বিশাখা” কমিটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারে। প্রয়োজনে । জানা য়ায় ,বিশাখা কমিটির চেয়ারপার্সনের দায়িত্বে থাকবেন ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একজন শিক্ষিকা বা মহিলা কর্মী। এছাড়াও বিশাখা কমিটির সদস্যদের অর্ধেকের বেশি সদস্য হবেন মহিলা।  বর্তমানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দেখা য়ায় মহিলারা যৌন হেনস্থা বা কুরুচিকর মন্তব্যের মুখোমুখি বেশি পরে ক্রমশ তা ক্রমশ এই সব ঘটনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নোংরা পরিবেশে গ্রেস করছে সেই অভিশাপ থেকে মুক্তি দিতেই সুপ্রিম কোর্টের এই নির্দেশ জারি করেছ।