মালদায় ইট দিয়ে থেঁতলে কাকাকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ ভাইপোর বিরুদ্ধে।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় কাকার চিকিৎসা চলছে
আশঙ্কাজনক অবস্থায় কাকার চিকিৎসা চলছে

দেবু সিংহ আজবাংলা মালদা, আবর্জনা ফেলাকে কেন্দ্র করে বচসার জেরে ইট দিয়ে থেঁতলে কাকাকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল ভাইপোর বিরুদ্ধে। ভাইপোসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় কাকার চিকিৎসা চলছে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে।ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার সন্ধ্যায় বৈষ্ণবনগর থানার বীরনগর সরকারটোলা এলাকায়।পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত ব্যক্তির নাম নিবারন মন্ডল(৫৯)। অভিযুক্ত স্বপন মন্ডল-সহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ।জানা গিয়েছে, নিবারণ মন্ডল এবং স্বপন মণ্ডলের বাড়ি পাশাপাশি। অভিযোগ, স্বপন মন্ডল মাঝেমধ্যে নোংরা আবর্জনা জানালা দিয়ে নিবারণ মন্ডলের জায়গায় ফেলতো। এই ঘটনার প্রতিবাদ করাতে গণ্ডগোলের সূত্রপাত। এর ফলে শুরু হয় বচসা। সেই সময় স্বপন মন্ডল ইট নিয়ে চড়াও হয় নিবারণ মন্ডলের উপর।স্বপন মণ্ডলের পরিবারের লোকেরাও মারধর করে বলে অভিযোগ। বাধা দিতে গেলে নিবারণ মন্ডল এর স্ত্রী এবং ছেলেও আহত হয়। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বেদরাবাদ গ্রামীণ হাসপাতাল এবং সেখান থেকে তাকে স্থানান্তর করা হয় মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। বর্তমানে সেখানে চলছে তার চিকিৎসা। আহত ব্যক্তির ছেলে চন্দন মন্ডল জানিয়েছেন, স্বপন মন্ডল তার গোত্রীয় দাদা।আবর্জনা ফেলাকে কেন্দ্র করে তার বাবার সঙ্গে স্বপন মণ্ডলের বচসা হয়। কিন্তু তবুও জোর করে স্বপন মন্ডল নোংরা আবর্জনা তাদের জায়গাতেই ফেলছিল বলে অভিযোগ। ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে তার বাবাকে ইট দিয়ে থেঁতলে আমার সঙ্গে ফোনে চেষ্টা করে। স্বপন মন্ডল সহ মোট ৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত পলাতক।ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে বৈষ্ণবনগর থানার পুলিশ।

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!