কুমারগঞ্জ প্রসাশনের সহযোগিতায় পথ হারিয়ে যাওয়া বাবাকে ফিরে পেল ছেলে

মনোজ কুমার সরকার আজবাংলা কুমারগঞ্জ. স্থানীয় সূত্রে র খবর অনুযায়ী বৃদ্ধার নাম সুভাষ রায়, বয়স ৬০.ছেলে প্রশান্ত রায়. বাড়ি কুমারগঞ্জ চুড়ইলকৃষ্ণ পুর. অসহায় বৃদ্ধা সুভাষের জীবিকা অর্জনের সম্বল ছিল এক মাত্র জমি. আজ পারিবারিক কারণে জমির বিঘার পরিমান কমতে বসেছে. তাই কঠোর পরিস্রমি সুভাষ বর্তমানে দিকভষ্ট্র বা আংশিক স্মৃতি শক্তির বিলোপ হয়েছে বলে অনেকের ধারণা. তাই এমনি এক দুর্ঘটনার সম্মুখীন সে নিজেই. গত কাল সুভাষ দিক ভ্রষ্ট্র হয়ে পতিরাম পৌছিয়. স্থানীয় কিছু সুহৃদয় ব্যাক্তি তাকে এদিক সেদিক ঘুরতে দেখে তাকে জিজ্ঞাসা বাদ করলে সে একটাই উত্তর দেয় আমার নাম সুভাষ রায়. আমি বাড়ি খুঁজে পাচ্ছি না. বাড়ি কুমারগঞ্জ এ. তৎক্ষণাৎ কুমারগঞ্জ থানায় ফোন এলে ওসি সঞ্জয় মুখার্জি র তৎপরতায় দুই ঘন্টার মধ্যে তার ছেলে প্রশান্তর হাতে তার বাবা কে তুলে দেয় কুমারগঞ্জ পুলিশ প্রসাশন. এমনহেন প্রসাশন এর সহযোগিতায় পুলিশ প্রসাশন উপর জনগণের আস্থা আরো বাড়বে বলে বিশিষ্ট জন রা মত প্রকাশ করেছেন.সুভাষ কে পরিবার এর হাতে তুলে দিতে পেরে পতিরাম নাগরিক ও যুব সমাজ কমিটি আনন্দে আপ্লুত. সামাজিক গণমাধমে তাঁদের মত প্রকাশ করে তারা কুমারগঞ্জ থানা এবং অবশ্যই ও সি সঞ্জয় মুখার্জি কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন.