আর কিছু ক্ষণের মধ্যেই অযোধ্যা মামলার রায়।শান্তি বজায় রাখার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

আজবাংলা আজই অযোধ্যা মামলার চূড়ান্ত রায়দান করতে চলেছে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ। সকাল সাড়ে ১০টায় প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ এই মামলার রায় দেবে। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈর সঙ্গে এই সাংবিধানিক বেঞ্চে থাকছেন বিচারপতি এসএ বোবদে, ডিওয়াই চন্দ্রচূড়, অশোক ভূষণ এবং এস আব্দুল নাজির। এই রায়কে ঘিরে যাতে কোনও রকম অশান্তির সৃষ্টি না হয় সে কারণে উত্তরপ্রদেশ জুড়ে কড়া নিরাপত্তা জারি করেছে রাজ্য সরকার।নিরাপত্তার প্রবল কড়াকড়ি।

অযোধ্যা মামলা র রায়ের আগে দেশবাসীর কাছে শান্তি বজায় রাখার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । শুক্রবার রাতে একাধিক টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি লিখেছেন, ‘আগামিকাল অযোধ্যা মামলার রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। গত কয়েক মাস ধরে এই মামলার লাগাতার শুনানি চলছিল। গোটা দেশের নজর ছিল এই মামলার উপর। সমাজের সকল স্তরের মানুষের কাছে আহ্বান, শান্তির পরিবেশ বজায় রাখুন।’ আরও একটি টুইটে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্ট যা রায় দেবে, তাতে কারও জয় বা পরাজয় হবে না। দেশবাসীর কাছে আবেদন, এই মামলায় যে রায়ই আসুক, দেশের ঐতিহ্য অনুযায়ী শান্তি বজায় রাখাটাই আমাদের মূল কর্তব্য হবে।’ অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার আগে দুর্গের চেহারা নিয়েছে মন্দিরনগরী। সব রাজ্যকে সতর্ক করে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। নজর রাখতে বলা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। উত্তরপ্রদেশে পৌঁছে গেছে চার হাজার আধাসেনা। শুধুমাত্র অযোধ্যা জেলাতেই মোতায়েন হয়েছে ১২ হাজার পুলিস। শুক্রবারই উত্তরপ্রদেশ পুলিশ-প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধান বিচারপতি। বৈঠকে ছিলেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজেন্দ্র কুমার এবং ডিজি ওমপ্রকাশ সিংহ। এই বৈঠককে ঘিরেই জোর জল্পনা শুরু হয়, তা হলে কি দু’-এক দিনের মধ্যেই অযোধ্যা মামলার রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। অবশেষে সেই জল্পনাই সত্যি হল। বিতর্কিত ভূখণ্ডের দখল নিয়ে হিন্দু-মুসলিম সম্প্রদায়ের আইনি বিবাদ ১৩৪ বছর ধরে চলছে।  

এমন সমস্ত আপডেট পেতে লাইক দিন!