যোগাসন সম্পর্কের ঘনিষ্ঠতা বাড়ায়,জানেন কীভাবে?

আজাবংলা   সমীক্ষায় বারবার উঠে এসেছে বেশিরভাগ সময় স্বাস্থ্য ও সম্পর্কের দিকে নজর দেওয়ার সময় পায় না মানুষ। ফলে শরীর যেমন মাঝেমধ্যেই অসুস্থ হয়ে পড়ে, তেমনই সম্পর্কের ক্ষেত্রেও আসে তিক্ততা। পার্টনারের সঙ্গে সামান্য দূরত্ব রেখে দাঁড়ান। এবার পিছন দিক থেকে বাঁ হাত দিয়ে ডান পা (বা উলটোটা) ধরুন। পার্টনারকেও একই কাজ করতে বলুন। এবার সামনে হাত বাড়িয়ে নিজের ও সঙ্গীর হাতের তালু স্পর্শ করুন। এভাবে কিছুক্ষণ এভাবে থাকুন। এটি সম্পূর্ণ ব্যালেন্সের আসন। তাই টলমল করতে পারেন আপনি বা আপনার সঙ্গী। একে অপরকে সাহায্য করুন।এই আসনটা বেশ কঠিন। শুধু হাত আর হাঁটুর জোরে আরও একজনকে উপরে তোলা খুব একটা সহজ নয়। বেশ কসরত করতে হয়। অনেক দিনের অনুশীলনও লাগে। কিন্তু যিনি অন্যজনকে ‘লিফটিং’ করবেন তাঁর হাত ও হাঁটুর শক্তি বাড়বে। অপরজনেরও কাজ কিছু কম নেই। শূন্যে পূর্ণভূজঙ্গাসন করা খুব একটা সহজ কাজ নয়। প্রথমে বিভক্তা আসনের পোজে বসুন। তারপর দুজন দুপায়ের গোড়ালি স্পর্শ করুন। হাত ধরে ব্যালেন্স করে দুজনের পা একসঙ্গে উপরে তুলুন আর নিচে নামান। প্রথমদিকে পায়ে টান ধরতে পারে। কিন্তু রোজ অভ্যাস করলে ফল মিলবে হাতেনাতে।