ব্রকোলি না খেয়ে অজান্তেই নিজের এ সব ক্ষতি করছেন আপনি

আজবাংলা     ফুলকপির মতো দেখতে হলেও স্বাদে ফুলকপির চেয়েও স্বাদু। পুষ্টিবিদদের বিধানে, ব্রকোলির পুষ্টিগুণও ফুলকপির চেয়ে বেশি। এই সব্জিতে জল বেশি থাকায় শীতে শরীরের পক্ষেও উপকারী ব্রকোলি। মূলত শীতের সব্জি হলেও আজকাল সারা বছরই শপিং মলগুলোয় ব্রকোলি মেলে। বড় বড় বাজারেও দেখা মেলে গোটা বছর।সালাড থেকে শুরু করে ফ্রায়েড রাইস বা চাউমিনেও ব্রকোলি দেওয়ার রীতি আছে। নিরামিষ তরকারিতেও ব্রকোলির ব্যবহার রয়েছে। ভিটামিন কে, আয়রন, পটাশিয়াম সমৃদ্ধ ব্রকোলিতে ফ্যাট প্রায় থাকে না বললেই চলে। তাই ডায়েটেশিয়ানদেরো বেশ পছন্দের এই সব্জি।   রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে ব্রোকলির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বৈশিষ্ট্য অন্য সবজির তুলনায় অনেক বেশি| ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভোনয়েড রয়েছে। এ ছাড়া এর মধ্যে বিটা-ক্যারোটিন এবং জিক্সানথিন রয়েছে। যা রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। পাচনতন্ত্র পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে পাচনতন্ত্র পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে ব্রোকলি। এর মধ্যে ডেটক্স থাকে যা পেট এবং পাচনতন্ত্র সাফ রাখতে সাহায্য করে। হাড়ের শক্তি যোগায় ক্যালসিয়াম হাড়ের স্বাস্থ্যের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান| ব্রোকোলিতে ক্যালসিয়ামের মাত্রা অনেক বেশি থাকে যা অন্যান্য সবজিতে বেশি মাত্রায় পাওয়া যায় না| তাই হাড়ের শক্তি যোগাতে ব্রোকলির ভূমিকা অপরিসীম।
  • ব্রকোলিতে প্রচুর পরিমাণে ফ্ল্যাভনয়েড, লিউটেন, ক্যারোটিনয়েড, বিটা-ক্যারোটিন-সহ উচ্চ মানের নানা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট থাকায় ডায়েটেশিয়ানদের কাছে এটি খুব জনপ্রিয়। রোগ প্রতিরোধে এই সব্জি বিশেষ ভূমিকা পালন করে। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টের কারণে প্রাকৃতিক ডিটক্স হিসেবেও কাজ করতে পারে
  • ক্যালোরি কম থাকায় ওজন বাড়ার কোনও সুযোগই দেয় না এই সব্জি। এতে জলের পরিমাণ প্রায় ৯০ শতাংশ। শরীরে জলের ভারসাম্য ধরে রাখতে তাই বিশেষ উপকারী এই সব্জি।
    • ভিটামিন সি, ভিটামিন কে, পটাশিয়াম, ক্যালশিয়াম থাকায় এই সব্জি হাড়ের জোর বাড়াতেও কাজে আসে।
    • রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে ব্রকোলি।
    • পটাশিয়াম থাকায় রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ ও হৃদরোগ প্রতিরোধে কাজে আসে এই সব্জি।
      • এতে থাকা ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও কেমফেরল শরীরে অ্যালার্জির হানা রুখে দেয়।
      • ব্রকোলির গ্লুকোরাফানিন ক্ষতিগ্রস্ত ত্বকের টিস্যু মেরামত করতে কাজে আসে।
      • রক্ত সঞ্চালন ও সংবহনে বিশেষ ভূমিকা পালন করে ব্রকোলি।